সাপাহারে মধ্যযুগীয় কায়দায় পরকীয়ার সাজা !

porokiaনয়ন বাবু, সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি সবখবর২৪: নওগাঁর সাপাহার উপজেলার কলমুডাঙ্গা গ্রামে গ্রাম্য শালিসী বৈঠকে শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগে এক গৃহবধু ও এক যুবককে ১০১ টি করে দোররা মারার অভিযোগ উঠেছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, কলমুডাঙ্গা গ্রামের নুরজামালের স্ত্রী ও নাজিরুদ্দীনের পুত্র ফারুক (৩৭) এর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত চতুর্থ দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের কয়েকদিন আগে ওই গৃহবধু তার প্রেমীক ফারুককে নিয়ে নিজ স্বামীর বাড়ীতে গোপন অভিসারে মিলিত হলে স্বামী নুরজামাল তাদের কে হাতে নাতে আটক করে এবং বিষয়টি জানা জানি হলে নির্বাচনের কারণে তার সামাজিক বিচারকার্য আপাতত বন্ধ থাকে।

এর পর ঘটনার বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পর গ্রামের মাতব্বরা বিষয়টিকে পুনরায় জীবিত করে গত পহেলা রমজানের দিন সকাল ১০টায় গ্রামের জৈনক মোজাফ্ফর মিস্ত্রির খলিয়ানে এক শালিশ বসায়। ঐ শালিশে বাদি বিবাদি দ্বয়কে একত্রিত করে দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা শালিস চলার পর শালিসের বিচারক মন্ডলীর সভাপতি একই গ্রামের জমিদার মন্ডলের পুত্র আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম, সদস্য কাছিম উদ্দীনের পুত্র সাজাহান ও নওসাদের পুত্র মতিউর রহমান অপরাধীদের অপরাধের কারণে ১০১টি করে বেত্রাঘাত করার জন্য যৌথভাবে রায় ঘোষনা দেন।

তাৎক্ষনিক বিচারকদের সিদ্ধান্ত মতে রায় কার্যকর করার জন্য অভিযুক্ত ওই যুবক ফারুক কে বিচারক মতিউর রহমানের পুত্র আনোয়ার ১০১টি দোররা (বেত্রাঘাত) করে। এর পর বিচারকদের তোপের মুখে গৃহবধুর পিতা তার মেয়েকেও ১০১ টি দোররা (বেত্রাঘাত) করে।

এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান, এখনও থানায় কোন অভিযোগ আসেনি অভিযোগ পেলে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এর পর গৃহবধুর পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে লোক লজ্জার ভয়ে তারা কোথাও কোন প্রকার অভিযোগ দাখিল করেনী বলে তারা জানান। ডিজিটাল যুগে এসেও পুরাতন যুগের শাসন ব্যবস্থা চালু থাকায় এলাকাবাসী ওই বিচারকদের দাম্ভিকতা নিয়ে নানা মন্তব্য করেছেন সে সাথে এলাকার মানবাধিকার সংস্থাগুলোকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

ঘোষণাঃ সবখবর২৪.কম-এ প্রকাশিত বিভিন্ন তথ্য, সংবাদ, ছবি, ভিডিও ও অন্যান্য উপাদান সবখবর২৪.কম এর নিজস্ব সংবাদদাতা ও সংবাদ নেটওয়ার্ক ছাড়াও বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সংগৃহিত। এ সকল মাধ্যমের মধ্যে রয়েছে সম্মানিত পাঠক, ফ্রি-ল্যান্স সংবাদকর্মী, সংবাদ সংগ্রাহক, সার্চ ইঞ্জিন, ইত্যাদি। সবখবর২৪.কম-এ প্রকাশিত সব তথ্য, সংবাদ, ছবি ও ভিডিও জনস্বার্থে প্রকাশিত। এখানে প্রকাশিত কোন কোন উপাদান অন্য কোন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা সংবাদ মাধ্যমের নিজস্ব সম্পদ হতে পারে আবার না-ও হতে পারে। আমরা অন্যের IPR এবং Copyright এর ব্যাপারে শ্রদ্ধাশীল। সবখবর২৪.কম-এ প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি, বা ভিডিও-র ব্যাপারে কাহারও কোন আপত্তি থাকলে প্রমাণসহ আমাদের অবহিত করুন। ব্যাপারটি আমাদের গোচরীভূত হওয়ার সাথে সাথে আমরা আপনার দাবীকৃত অংশ আমাদের সবখবর২৪.কম থেকে অপসারণ করবো। আমাদের গোচরীভূত হওয়ার আগে এ সংক্রান্ত কোন ওজর আপত্তি ও দাবী সর্ব আদালতে অগ্রাহ্য হবে। এব্যাপারে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি। ধন্যবাদ।

সমশ্রেণী সংবাদ

Leave a Reply


Your email address will not be published. Required fields are marked *